চুনারুঘাটে জনবহুল রাস্তায় ট্রাক্টরের বেপরোয়া চলাচল বন্ধের দাবিতে ইউএনও বরাবর স্মারকলিপি প্রদান

0

চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে শায়েস্তাগঞ্জ-চুনারুঘাট আঞ্চলিক সড়ক সহ চুনারুঘাট উপজেলার এলজিইডি রাস্তাতে মাটি বোঝাই ও বালু বোঝাই অবৈধ ট্রাক্টর চলাচল বন্ধের দাবিতে উপজেলার দেওরগাছ ইউপির অন্তর্গত আমতলী বাজার, ইনাতাবাদ, রহমতাবাদ, বাঘারুক, কালিশিরী গ্রামের শত শত লোক বুধবার সকাল ১১টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে উপস্থিত হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহমেদ জামিল সহ বিভিন্ন দপ্তরে অবৈধ ট্রাক্টর চলাচল বন্ধের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করেন। স্মারকলিপিতে গ্রামবাসীরা উলে­খ করেন যে, দেওরগাছ ইউপির আমতলী হইতে ইনাতাবাদ বাঘারুক ভায়া কালিশিরী মুখী এলজিইডি’র একটি রাস্তা যা দীর্ঘদিনের পুরনো। কিছুদিন পূর্বে উক্ত রাস্তাটি এলজিইডি’র আওতায় পূনঃনির্মাণ করা হয়। গত কয়েকদিন যাবত ফসলি জমি থেকে ঐ এলাকার মাটি ব্যবসায়ী আফরোজ মিয়া, আঃ কাদির, মাসুম মিয়া, আঃ ছালাম গংরা তাদের দলবল সহকারে ১০/১৫টি ট্রাক্টরযোগে ইনাতাবাদ হতে মাটি বোঝাই ট্রাক্টর দিয়ে উক্ত রাস্তা ব্যবহার করে ব্রিক ফিল্ড সহ বিভিন্ন স্থানে মাটি সরবরাহ করে আসছে। ফলে জনগুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি মানুষ ও যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। এছাড়া অবৈধ ট্রাক্টর চলাচল করায় গত মঙ্গলবার চুনারুঘাট উত্তর বাজারে সাবাজ মিয়া নামে এক কিশোর ট্রাক্টরের চাপায় ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। একই দিন উপজেলার জরুলিয়া এলাকায় মরণঘাতক ট্রাক্টরের চাপায় ৩ বছরের শিশু বাচ্চা সোহা আক্তার মারা যায়। অবৈধ মরণঘাতক ট্রাক্টর জনবহুল রাস্তায় চলাচলের ফলে উপজেলার জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলো ধ্বংসের ধারপ্রান্তে এবং প্রতিনিয়তই ঘটছে মানুষের প্রাণহানি। এতে সমগ্র চুনারুঘাট উপজেলাবাসীর মনে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ বিষয়ে চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নির্মলেন্দু চক্রবর্তীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ট্রাক্টর বন্ধের জন্য জরুরী পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে চুনারুঘাট উপজেলাবাসী অবৈধ মরণযান ট্রাক্টর চলাচল বন্ধের জন্য প্রশাসনের দ্রুত কার্যকারী পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য জোর দাবি জানান।

Leave A Reply

Pinterest
Print