শৈলকুপায় সামাজিক প্রতিপক্ষের হামলায় ৩২টি বাড়ীঘর ভাংচুর

0

মনিরুজ্জামান সুমন,ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সামাজিক আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় ৩২টি বাড়ীঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। রোববার সকালে উপজেলার উমেদপুর ইউনিয়নের লক্ষণদিয়া ও ব্রাহিমপুর এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, উমেদপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা সাব্দার মোল­ার সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ সামাজিক প্রতিপক্ষ পরাজিত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মিজানুর রহমান বাবুলের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিলো। এরই স্ত্রূ ধরে রোববার ভোরে ঘুমন্ত অবস্থায় বাবুলের কর্মী সমর্থক আমিন মন্ডল,কপাল কাটা শহিদ,সাইফুল,রফিকুল ও আলিমের নেতৃত্বে দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে লক্ষণদিয়া ও ব্রাহিমপুর গ্রামে সাব্দার হোসেন মোল­ার কর্মী সমর্থকদের উপর হামলা চালায় । এসময় লক্ষণদিয়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা তাহাজ্জদ হোসেন,ইউনুস,রবিউল,ইদ্রিস,জাবেদ মোল্যা,আবুল কাশেম,বেল্টু,রাসেল,আনোয়ার হোসেন, ইসমাইল,ফজলু,শরিফুল,আব্দুর রাজ্জাক,জুলফিকার,আবু বক্কর ও নজরুলের দোকানসহ ৩২ টি বসতঘর ভাংচুর করে। খবর পেয়ে শৈলকুপা থানার ওসির নেতৃত্বে সেখানে পুলিশ উপস্থিত হলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ঐসকল গ্রামগুলোতে আতংক বিরাজ করছে।
শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে উমেদপুর ইউনিয়নের দুইটি গ্রামে বেশ কয়েকটি বাড়ীঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এলাকায় পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
এদিকে হামলার শিকার হওয়া বাড়ীঘরগুলো পরিদর্শণ করে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীম হোসেন মোল্লা তাদেরকে শান্তনা দেন।

Leave A Reply

Pinterest
Print